পর্নো তারকা সানি লিওন কি এখনও পর্নো সিনেমায় অভিনয় করেন?

0 minutes, 0 seconds Read

সানি লিওনভারতীয় বংশোদ্ভূত সাবেক কানাডীয় পর্নো তারকা সানি লিওন। তিনি ম্যাক্সিম ম্যাগাজিনের দৃষ্টিতে ২০১০ সালে বিশ্বের সেরা ১০ পর্নো স্টারের একজন হিসেবে নির্বাচিত হন। সম্প্রতি ইন্ডিয়া টুডে সাময়িকীতে একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি খোলামেলা আলোচনা করেছেন পর্নো ইন্ডাস্ট্রি থেকে বলিউডে পদার্পনের নানা বিষয়। সাক্ষাৎকারটির চুম্বক অংশ প্রকাশিত হল।

পর্নো নায়িকা থেকে বলিউডের নায়িকা বনে যাওয়াটা কেমন- কঠিন বা সহজ ছিল?

বলিউডে অভিনয় সম্পূর্ণ আলাদা। আমি সব সময়েই এখনকার মতো ক্যামেরার সামনে কাজ করতে চেয়েছিলাম। প্রধান ধারার সিনেমায় নায়িকা হওয়ার ইচ্ছা ছিল আমার। একজন প্রাপ্তবয়স্ক সিনেমার তারকা থেকে প্রধান ধারার সিনেমায় নায়িকা হওয়া ‘ভার্চুয়ালি’ অসম্ভব। কিন্তু আমি ভাগ্যবতী হওয়ায় এতে সফল হয়েছি।

পর্নো জগৎ থেকে বলিউডে গ্রহণযোগ্য হওয়া আপনার কীভাবে সম্ভব হল?

আমার মনে হয় বিগ বস অনুষ্ঠান আমাকে গ্রহণযোগ্য হতে সাহায্য করেছে। দর্শকরা টিভিতে সত্যিকার আমাকে দেখেছে। প্রতিদিন রাত ১০টায় অন্য মেয়েদের মতোই আমার রান্না, বাড়ির কাজ ইত্যাদি দেখে দর্শকরা আমাকে গ্রহণ করেছে। আমি যদি সরাসরি মুম্বাইতে কাজ করার জন্য চলে আসতাম তাহলে তারা আমাকে কখনোই গ্রহণ করতেন না।

আপনি কি এখনও পর্নো সিনেমায় অভিনয় করেন?

এটা একটা ভুল ধারণা যে, আমি এখনও পর্নো সিনেমায় অভিনয় করি। বিগ বসে অংশ নেওয়ার সময়েই আমি পর্নো সিনেমায় অভিনয় ছেড়ে দিয়েছি। তবে আমি আমার অতীত ইন্টারনেট থেকে মুছে ফেলতে পারি না।

প্রথমবার অ্যাডাল্ট সিনেমা স্টার হিসেবে ক্যামেরার মুখোমুখি হতে কেমন লেগেছিল?

দেখুন, এটা একটা ব্যবসা। বহু কোটি ডলারের এ ইন্ডাস্ট্রি ছড়িয়ে আছে বিশ্বব্যাপী। সে কথাটা মনে রেখে আমি ছিলাম সে সময় সম্পূর্ণ পেশাদারী। পরিচালকের কাছে করা চুক্তি মোতাবেক আমি চেয়েছিলাম যথাসম্ভব সফল ব্যবসা। প্রথমবার পর্নো ফিল্মে আমি আমার বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গেই অভিনয় করেছিলাম। এ ধরনের পর্নো সিনেমায় আমি খুব অল্প মানুষের সঙ্গেই অভিনয় করেছি। তাদের একজন আমার স্বামী, যে সে সময় আমার বয়ফ্রেন্ড ছিল।

পর্নো জগতে যোগ দেওয়ার পর আপনার পরিবারের প্রতিক্রিয়া কেমন ছিল?

অন্য সাধারণ পরিবারের মতোই তারা বিচলিত হয়েছিলেন। আমি আমার বাবার সঙ্গে পরামর্শ না করেই সেটা শুরু করেছিলাম, তাই তিনি বিচলিত হয়েছিলেন। তবে তিনি আমাকে একটা পরামর্শ দিয়েছিলেন, যা আমি সব সময় মনে রেখেছিলাম- আমি যাই করি তাতে সফল হতে হবে।

আপনার দেহের সবচেয়ে আকর্ষণীয় অংশ কোনটি বলে মনে করেন?

আমার মুখ।

3316 Total Views 2 Views Today
Spread the love

Similar Posts